Ticker

6/recent/ticker-posts

Ad Code

২৫০০ বছরের ইতিহাসে প্রথম, ভক্ত ছাড়াই পথে পুরীর জগন্নাথদেবের রথ

২৫০০ বছরের ইতিহাসে প্রথম, ভক্ত ছাড়াই পথে পুরীর জগন্নাথদেবের রথ

২৫০০ বছরের ইতিহাসে প্রথম, ভক্ত ছাড়াই পথে পুরীর জগন্নাথদেবের রথ

  নিউজ ডেস্ক: অনেক টানাপোড়েনের পর শর্তসাপেক্ষে পুরী (Puri)’র রথযাত্রার অনুমতি দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)৷ মঙ্গলবার সকালে এই নির্দেশ মেনে ২৫০০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম ভক্ত ছাড়াই পথে নামল জগন্নাথদেবের রথ। জনসমাগম রুখতে সোমবার রাত থেকেই কারফিউ জারি করা হয়েছে পুরী শহরে।

সোমবার সুপ্রিম কোর্ট শর্তসাপেক্ষে রথযাত্রার নির্দেশ দিতেই শুরু হয়েছিল শেষলগ্নের প্রস্তুতির কাজ। এরপর মঙ্গলবার সকাল হতেই দেখা যায় রথের দড়ি টানতে আদালতের নির্দেশ মেনে ৫০০ জনের কম মানুষ জড়ো হয়েছেন মন্দির চত্বরে। যার মধ্যে কোনও সাধারণ মানুষ নেই। কেউ সেবায়েত বা পুরোহিত তো কেউ মন্দিরের কর্মী। প্রথমে মন্দির স্যানিটাইজ করা হয়। তারপর শুরু হয় রথের সাজানোর কাজ।

আর সাজানোর কাজ শেষ হতেই মন্দিরের গর্ভগৃহ থেকে প্রথমে বের করে নিয়ে আসা হয় ভগবান বলরাম বা বলভদ্রদেবের মূর্তি। একদিকে খোল-করতাল বাজিয়ে চলছিল ভগবানের নামগান। অন্যদিকে পুরোহিত ও সেবায়েতরা কাঁধে করে একে একে বলরাম, সুভদ্র ও জগন্নাথদেবকে রথ ওঠান। তারপর মঙ্গলমন্ত্র উচ্চারণ করে রথের দড়ি ধরে টান দেন।

সোমবার সুপ্রিম কোর্টের তরফে পুরীতে রথযাত্রার অনুমতি দিয়ে বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে মন্দির কমিটি, রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের মিলিত প্রয়াসে রথযাত্রার আয়োজন করা যাবে। করোনার কারণে গত ১৮ জুন পুরীর রথযাত্রা স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। তারপরই শীর্ষ আদালতে এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য বেশ কয়েকটি আবেদন জমা পড়ে। সোমবার তার শুনানিতে শর্তসাপেক্ষে রথযাত্রার আয়োজন করার অনুমতি দেওয়া হয়। পাশাপাশি পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বাইরে চলে যাচ্ছে মনে করলে ওড়িশা সরকার রথযাত্রা যে কোনও সময় বন্ধ করে দিতে পারে।


এখন বাংলা - খবরে থাকুন সবসময়

এখন বাংলা, পশ্চিমবঙ্গের একমাত্র নির্ভীক পোর্টাল। আমরা আমাদের পাঠকদের কে সর্বদা সত্য খবর দিতে বধ্য পরিকর। স্থানীয়, রাজ্য, দেশ, দুনিয়া ও বিভিন্ন ধরনের খবর জানতে চোখ রাখুন এখন বাংলা ওয়েবসাইটে।
Source : Googlenews

(স্বভাবতই আপনি আপনার এলাকার নানান ঘটনার সাক্ষী, দেরি না করে শেয়ার করুন আমাদের সাথে।  ঘটনার বিবরণ দিন, ছবি এবং ভিডিয়ো থাকলে দিতে পারেন আমাদের ইমেলে , ekhonbanglaofficial@gmail.com ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

আমাদের ওয়েবসাইটে যদি কোন রকম বিজ্ঞাপন দিতে চান তবে যোগাযোগ করুন  9476288780 এই নম্বরে, ধন্যবাদ।